চক্রান্তের তীর ভবিষ্যৎ নেতৃত্বে

চক্রান্তের তীর ভবিষ্যৎ নেতৃত্বে
প্রকাশ : ০৩ মে ২০১৬, ০৪:২৭:৫৬
চক্রান্তের তীর ভবিষ্যৎ নেতৃত্বে
বিবার্তা ডেস্ক
প্রিন্ট অ-অ+
১৯৭৫ সালে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে সপরিবারে হত্যার মধ্য দিয়ে স্বাধীন সার্বভৌম বাংলাদেশকে নেতৃত্বশূন্য করার যে চক্রান্ত শুরু হয়েছিলো, তা আজও বিদ্যমান রয়েছে। তারই ধারাবাহিকতায় ১৯বার বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনাকে হত্যার নীল নকশা ও ২১শে আগস্টের বর্বরতার দৃশ্য অবলোকন করেছে জাতি।
 
দেশী-বিদেশি সকল ষড়যন্ত্র মোকাবেলা করে দেশ ও শেখ হাসিনা যখন বিশ্ব নেতাদের মাঝে নিজের সুখ্যাতি অর্জন করতে সক্ষম হয়েছে, যখন ক্ষমতাধর নেতাদের স্বপ্নে রোল মডেল শেখ হাসিনা, ঠিক তখন পরিকল্পিতভাবে একেবারেই ভিন্ন আঙ্গিকে চক্রান্তের নীল নকশা শুরু করেছে বিএনপি-জামায়াত ইসলাম। তাদের চক্রান্ত এখন শুধু আওয়ামী লীগ-শেখ হাসিনার মধ্যে সীমাবদ্ধ নয়। চক্রান্তের তীর এখন ভবিষ্যৎ রাজনীতি ও নেতৃত্বের প্রতিও ।
 
তৃতীয় বিশ্বের আধুনিক প্রযুক্তির সাথে নতুন প্রজন্মের সেতুবন্ধনে আবদ্ধ করতে যিনি প্রতিনিয়ত কাজ করে যাচ্ছে তিনি আর কেউ নয়,  তথ্য-প্রযুক্তিবিদ, তরুণ প্রজন্মের পথ প্রদর্শক, যার ছোঁয়ায় বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের  সোনার বাংলা আজ ডিজিটাল বাংলায় রুপান্তরিত হচ্ছে, সেই শিক্ষিত, মার্জিত আর মেধার উজ্জ্বল নক্ষত্র, সজীব ওয়াজেদ জয়। 
 
প্রত্যন্ত অঞ্চলের উদীয়মান নতুন প্রজন্ম যাঁরা প্রযুক্তি নিয়ে স্বপ্ন দেখেন, যাঁরা নোংরা রাজনীতি পরিহার করে শিক্ষা আর মেধার নেতৃত্ব পছন্দ করেন; যখন তাঁদের স্বপ্ন পুরুষ ও আগামীর নেতৃত্বের প্রতীক সজীব ওয়াজেদ জয়কে মূল্যায়ন করতে শুরু করেছে তখন চক্রান্তের তীর তাঁর দিকে ছুড়ে দিতে ভুল করেনি ষড়যন্ত্রকারীরা।
 
ইতোমধ্যেই প্রধানমন্ত্রীর তথ্য ও প্রযুক্তি বিষয়ক উপদেষ্টা ও ছেলে সজীব ওয়াজেদ জয়কে অপহরণ করে হত্যার ষড়যন্ত্রে লিপ্ত থাকার বিষয়যুক্তরাষ্ট্রের মাধ্যমে দেশের জনগণ অবগত হয়েছে। এই চক্রান্তের সাথে সম্পৃক্তের অভিযোগে বিচারাধীন আছেন সাংবাদিক শফিক রেহমান ও মাহমুদুর রহমান। সন্দেহের তালিকায় আছেন আরো অনেকে। এরই মাঝে নতুন করে চক্রান্তের ধান বোনা হচ্ছে। এটা মুলত মানবতাবিরোধী অপরাধী দেলোয়ার হোসেন সাঈদীকে চাঁদে দেখা যাওয়ার মতন কল্পকাহিনী যা অতীতের ন্যায় এবারও ছুড়ে ফেলে দিবে দেশের জনগণ ও উদীয়মান প্রজন্ম।
 
সত্য অতি তিক্ত হলেও সদা সত্যই। যেখানে বেগম জিয়ার পুত্র তারেক রহমানের দূর্বৃত্তায়ণ, অসৎ আচরণ, ক্ষমতার দাপট, মানি লন্ডারিংসহ এমন কোনো অপরাধ নেই যে সে করেনি। সেখানে ব্যক্তিত্ববান শিক্ষিত এবং ২০০৭ সালে ইয়ং ‘গ্লোবাল লিডার’ নির্বাচিত হওয়া সজীব ওয়াজেদ জয়ের জনপ্রিয়তা আর গ্রহণযোগ্যতায় ঈর্ষানীত হয়ে মিথ্যা ও অপপ্রচারে উঠে-পরে লেগেছে বিএনপি-জামায়াত ইসলাম। আর এ মিথ্যাচার যে শুধু বক্তব্য বিবৃতির মধ্যে সীমাবদ্ধ তা কিন্তু নয়। সোস্যাল মিডিয়া জুড়ে ডলার খরচ করেও করা হচ্ছে। 
 
উদ্দেশ্য- সজীব ওয়াজেদ জয়কে বিতর্কিত করা। নতুন প্রজন্মের বিশ্বাসে চিড় ধরা। উদীয়মান নতুনদের কাছ থেকে জয়কে বিছিন্ন করার ষড়যন্ত্র সুপরিকল্পনা। এ চক্রান্ত যে শুধু শেখ হাসিনার পুত্রের জন্য তা কিন্তু নয়। এ ষড়যন্ত্র যে একান্ত সজীব ওয়াজেদ জয়ের বিরুদ্ধে তাও নয়। 
 
এ চক্রান্ত ভবিষ্যৎ নেতৃত্ব ধ্বংস করার। নতুন প্রজন্মের স্বপ্ন পুরুষ ও আগামীর পথ প্রদর্শক সজীব ওয়াজেদ জয়ের স্বপ্নের বিরুদ্ধে। তাঁর কর্মপরিকল্পনার বিরুদ্ধে। বাংলাদেশের উন্নয়নের অগ্রযাত্রার বিরুদ্ধে। বাঙালিকে বিশ্বের দরবারে মাথা উঁচু করে দাঁড়াবার বিরুদ্ধে।
 
এ ষড়যন্ত্র প্রতিহত করতে নতুনদের সংগঠিত হতে হবে। অতীতের ন্যায় ভবিষ্যতেও সকল ষড়যন্ত্র ছিন্ন করে সত্যের পথে অবিচল প্রজন্ম। সঠিক নেতৃত্বের প্রতি শ্রদ্ধাশীল বাংলাদেশ।
 
কবীর চৌধুরী তন্ময়
সভাপতি 
বাংলাদেশ অনলাইন অ্যাক্টিভিস্ট ফোরাম (বোয়াফ) 
 
বিবার্তা/ডিডি/ইফতি
সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

৪৬, কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ

কারওয়ান বাজার (২য় তলা), ঢাকা-১২১৫

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১১৯২১৫১১১৫

Email: [email protected], [email protected]

© 2020 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com