বৈকুণ্ঠপুর চা বাগান শ্রমিকদের আল্টিমেটাম

বৈকুণ্ঠপুর চা বাগান শ্রমিকদের আল্টিমেটাম
প্রকাশ : ১৪ আগস্ট ২০১৬, ১৭:১৯:১৩
বৈকুণ্ঠপুর চা বাগান শ্রমিকদের আল্টিমেটাম
হবিগঞ্জ প্রতিনিধি
প্রিন্ট অ-অ+
বেতন ভাতার দাবিতে ৪৮ ঘণ্টার আল্টিমেটাম দিয়েছেন হবিগঞ্জের মাধবপুর উপজেলার বৈকুন্ঠপুর চা বাগানের শ্রমিকরা।
 
রবিবার দুপুরে জেলা প্রশাসকের নিকট স্মারকলিপি দেয়ার সময় তারা এ আল্টিমেটাম দেন। বেঁধে দেয়া সময়ের মধ্যে সমাধান না হলে আগামী ১৭ আগস্ট তারা ঢাকা-সিলেট মহাসড়ক অবরোধের হুমকি দেন।
 
এর আগে চা শ্রমিকরা শহরে বিক্ষোভ মিছিল করে জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সামনে সমাবেশ করেন। মোহন রবিদাসের পরিচালনায় এতে বক্তব্য দেন চা শ্রমিক ইউনিয়নের উপদেষ্টা কাঞ্চন পাত্র ও নৃপেন পাল। এ সময় বক্তারা বলেন, গত ৪ মাস ধরে ওই বাগানের চা শ্রমিকরা বেতন ভাতা পাচ্ছেন না। এ সময়ের মাঝে অনাহারে অর্ধাহারে থেকে নানা রোগে আক্রান্ত হয়ে চিকিৎসার অভাবে তাদের ৭ জন শ্রমিক ও কর্মচারী মারা গেছেন।
 
স্মারকলিপিতে চা শ্রমিকরা উল্লেখ করেন, গত ১৫ সপ্তাহ ধরে বৈকুণ্ঠপুর চা বাগানে শ্রমিকদের রেশন মজুরী বন্ধ রয়েছে। অপরদিকে চিকিৎসাসেবাসহ অন্যান্য সব সুযোগ সুবিধাও বন্ধ রয়েছে। এমনকি ২৬ মাসের প্রভিডেন্ট ফান্ডের টাকাও কর্তৃপক্ষ আত্মসাত করেছে। ফলে চা শ্রমিকদের জীবনে অবর্ণনীয় দুর্ভোগ ও অভাব অনটন নেমে এসেছে। চা শ্রমিকরা অনাহারে অর্ধাহারে দিন যাপন করছে।
 
চা শ্রমিক ইউনিয়নের উপদেষ্টা কাঞ্চন পাত্র জানান, গত ৪ মাসে বাগানের টিলা বাবু সাহাদুল ইসলাম, টিলা বাবু মরণ চক্রবর্তী, শ্রমিক সাধন সাঁওতাল, নিতাই সাঁওতাল, নিষ্ণু কেউট, লক্ষ্মী মনি ভূমিজ ও পবন সাঁওতাল মারা গেছেন।
 
জেলা প্রশাসক সাবিনা আলম জানান, ইতিমধ্যে চা শ্রমিকরদের প্রত্যেক পরিবারকে ২০ কেজি করে চাল দেয়া হয়েছে। এখন আরও ২০ কেজি করে চাল দেয়া হবে। আগে মালিক ওয়াদা করেছিলেন গত ৪ আগস্ট শ্রমিকদের পেমেন্ট দিয়ে দেবেন। কিন্তু তিনি কথা রাখেননি। বেতন ভাতা না পেয়ে কিছু শ্রমিক দিনমজুর, কেউ অন্য বাগানে গিয়ে কাজ করছেন। আবার কিছু শ্রমিক এ বাগানটিকে ধরে রেখেছেন। বাগান নষ্ট হতে দেননি।
 
তিনি বলেন, আমি মালিকপক্ষের সাথে কথা বলবো। তাদেরকে নোটিশ করবো কেন তাদের লিজ বাতিল করা হবে না।
 
বিবার্তা/ফয়সল/রয়েল
সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

৪৬, কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ

কারওয়ান বাজার (২য় তলা), ঢাকা-১২১৫

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১১৯২১৫১১১৫

Email: [email protected], [email protected]

© 2019 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com