যশোরে ভিজিএফ’র চাল আত্মসাতের অভিযোগ

যশোরে ভিজিএফ’র চাল আত্মসাতের অভিযোগ
প্রকাশ : ১৭ সেপ্টেম্বর ২০১৬, ১৭:৫৬:৫৩
যশোরে ভিজিএফ’র চাল আত্মসাতের অভিযোগ
যশোর প্রতিনিধি
প্রিন্ট অ-অ+
যশোরের অভয়নগর উপজেলার সুন্দলী ইউনিয়নের ৬ নম্বর ওয়ার্ডের হতদরিদ্রদের ভিজিএফ’র চাল আত্মসাত ও পরিমাণে কম দেয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। গত ১১ সেপ্টেম্বর অভয়নগর থানার পুলিশ ধোপাদী গ্রাম থেকে নছিমন ভর্তি প্রায় ১৮ বস্তা ভিজিএফ’র চাল আটক ও মামলা দায়েরের পর এবার অভিযোগ উঠেছে অত্র ইউনিয়নের ৬ নম্বর ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য ইকবাল হোসেনের বিরুদ্ধে।
 
স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, পবিত্র ঈদ-উল-আজহা উপলক্ষে উপজেলায় ভিজিএফ কর্মসূচির আওতায় জলাবদ্ধ দুস্থ ও হতদরিদ্র ব্যক্তি অথবা পরিবারের মাঝে কার্ডপ্রতি ১০ কেজি করে চাল বিনামূল্যে বিতরণের জন্য সুন্দলী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান বিকাশ রায় নওয়াপাড়া সরকারি খাদ্যগুদাম থেকে ২,৯২৮টি কার্ডের অনুকূলে ২৯,২৮০ মেট্রিক টন চাল তোলেন। গত ১১ সেপ্টেম্বর ওই ইউনিয়নের ৭ নম্বর ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য প্রকাশ চন্দ্র প্রায় ১৮ বস্তা ভিজিএফ’র চাল বিক্রির উদ্দেশ্যে পাচার কালে জনগণের সহযোগিতায় পুলিশ জব্দ করে এবং অভিযুক্ত প্রকাশ চন্দ্রের বিরুদ্ধে অভয়নগর থানায় মামলা করেন ট্যাগ অফিসার উপজেলা সমাজসেবা কর্মকর্তা এসএম রফিকুল হায়দার। ঈদ পার হতে না হতেই এবার বেরিয়ে আসে একই ইউনিয়নের ৬ নম্বর ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য ইকবাল হোসেনের ভিজিএফ’র চাল আত্মসাতের অভিযোগ।
 
অভিযোগকারীরা জানান, তাদের ওয়ার্ডে ৪৪৫ জন কার্ডধারী রয়েছেন। যাদের মধ্যে প্রায় ১৫০ জন ভিজিএফ’র চাল পায়নি এবং যারা পেয়েছেন তারা ১০ কেজির পরিবর্তে ৮ অথবা সাড়ে ৮ কেজি করে চাল পেয়েছেন।
 
নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একাধিক কার্ডধারী জানান, চাল আনতে গেলে উপস্থিত ইকবাল মেম্বর জানান, তোমাদের আসতে দেরি হয়েছে বিধায় অন্যদেরকে চাল দিয়ে দিয়েছি।
 
এ বিষয়ে অভিযুক্ত ইউপি সদস্য ইকবালের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, অনেকের আসতে দেরি হয়ায় ১০ থেকে ১৫ জন চাল নাও পেতে পারেন। তিনি জানান, গ্রামে তার বিরুদ্ধে এক শ্রেণির মানুষ অপপ্রচার চালিয়ে তার রাজনৈতিক চরিত্র হরনের অপচেষ্টা করছে। তিনি প্রায় দেড় শতাধিক মানুষের ভিজিএফ’র চাল না পাওয়ার ঘটনা অস্বীকার করেন।
 
অপরদিকে সুন্দলী ইউনিয়নের ৬ নম্বর ওয়ার্ড আ.লীগের সভাপতি কুদ্দুস জানান, তার ওয়ার্ডের ১৫৫ জন হতদরিদ্র কার্ডধারী মানুষ ভিজিএফ’র চাল থেকে বঞ্চিত হয়েছেন। তিনি সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের নিকট এ অপরাধের সাথে জড়িতদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি করেন।
 
এ ব্যাপারে সুন্দলী ইউনিয়নের ট্যাগ অফিসার অভয়নগর উপজেলা সমাসেবা কর্মকর্তা এসএম রফিকুল হায়দার জানান, জনপ্রতিনিধিদের উপস্থিতিতে ভিজিএফ’র চাল বিতরণ করা হয়েছিল। তবে ৬ নম্বর ওয়ার্ডে অনিয়মের বিষয়ে তদন্ত করা হবে। তদন্তে অভিযুক্ত ইউপি সদস্য ইকবাল দোষী প্রমাণিত হলে যথাযথ আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।
 
বিবার্তা/তুহিন/রয়েল 
সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

৪৬, কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ

কারওয়ান বাজার (২য় তলা), ঢাকা-১২১৫

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১১৯২১৫১১১৫

Email: [email protected], [email protected]

© 2019 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com