অবাক পৃথিবী!!! অবাক করলে তুমি...

অবাক পৃথিবী!!! অবাক করলে তুমি...
প্রকাশ : ০৮ এপ্রিল ২০১৬, ১৯:৩৪:১৭
অবাক পৃথিবী!!! অবাক করলে তুমি...
বিবার্তা ডেস্ক
প্রিন্ট অ-অ+
অত্যন্ত দুর্ভাগ্যজনক হলো আমাদের সত্য বলতে স্পর্ধার দরকার হয়! বিচারের দাবি তুলতে হলে হত্যা হবার জন্য অপেক্ষা করতে হয়! কাউকে মেরে না ফেলা পর্যন্ত আমরা বুঝিই না যে নির্যাতন হচ্ছে, আমাদের কিছু করা উচিত!... অবাক পৃথিবী!!! অবাক করলে তুমি...
 
... আমাদের দেশে প্রয়োজনীয় সাক্ষী ও সাক্ষ্য-প্রমাণাদীর অভাবে খুনির বিচার নাও হতে পারে, ধর্ষকের বিচার নাও হতে পারে, দুর্নীতির বিচার না হতে পারে। কিন্তু টোকাইয়ের বিচার অবশ্যই হয়। আমরা আইন হাতে তুলে নিতে দ্বিধা করি না! আবার পেছনে দাঁড়িয়ে দাঁত কেলিয়ে হাসি!!!
 
... সমসাময়িক হত্যাত্তোর কোনো বিচারের দাবি নিয়ে আমি সাধারণত কিছু লিখি না (অন্যদের কর্মসূচির সাথে একাত্মতা অবশ্যই প্রকাশ করি আর যেহেতু আমি বিলিভার-মৃতের আত্মার জন্য দোয়া করি।)। 
অবাক পৃথিবী!!! অবাক করলে তুমি...
আজকাল আমাকে রীতিমতো ইনবক্সে জবাবদিহি করতে হয় কেন এসব নিয়ে লিখি না? আচ্ছা, আপনারাই বলেন- একটা মানুষ মারা গিয়েও যেখানে বোঝাতে পারলো না তার ওপর অন্যায় হয়েছে, এই অন্যায়ের উপযুক্ত বিচার হওয়া উচিত, আমার মতো নামহীন একজন ঠুনকো লেখকের স্ট্যাটাস সেটা বোঝাতে পারবে! আত্মপ্রচারণা ছাড়া বেসিক্যালি কিছু হয় না তাতে। স্পেশালি যে মারা যায়, তার তো কোনো উপকারই হয় না! বিচারের বিষয়কে আর নাই বা টানলাম! যে দেশের জাতির পিতার বিচার হতে এতো বছর লাগে! যুদ্ধাপরাধীর বিচারের জন্য গণজাগরণ মঞ্চ সৃষ্টির অপেক্ষায় থাকতে হয়!... এক একটা মৃত্যু যেন একটা বোবা প্রতিবাদ আর স্ট্যাটাসের পর স্ট্যাটাস...!
 
গণমাধ্যমকর্মীর হত্যা নিয়ে তোলপাড় দেখেছিলাম, এখন পর্যন্ত বিচার নিয়ে কিছু শুনিনি। সেদিন প্রবীণ সাংবাদিক সাজ্জাদ কাদির স্যারসহ পরিবারের সবাইকে অজ্ঞান করে ঘরের সবকিছু চোরে নিয়ে গেল, তাও গ্রিন রোডের মতো জায়গায়, রাস্তার পাশের বাড়ি থেকে। এর কোনো সুরাহা নাই। তারচেয়ে অবাক কাণ্ড যে, তাঁর আর আমার মাঝের প্রায় ১০০জন মিউচুয়াল ফ্রেন্ডস, যার বেশিরভাগই প্রেস রিলেটেড। কেউ একটা স্ট্যাটাস দিয়ে ব্যাপারটা জানালেন না পর্যন্ত! তাঁর তো জ্ঞান নাও ফিরতে পারতো! তখন হয়তো ঝান্ডাহাতে প্রতিবাদ বা বিচারের দাবি নিয়ে পথে নামতাম!
 
কিছুদিন আগে রাজন হত্যা নিয়ে এতোই মাতামাতি... মাই গুডনেস!!! ফেসবুকে ঢুকতে ভয় লাগতো যে, না জানি কেমন বীভৎস ছবি দেখি! যারা ছবি দিয়েছিলেন তাদের বেশিভাগই জানেন না শেষটায় কী হয়েছে! আজ একটা টোকাইয়ের নির্যাতন দেখে মনে হলো 'It's high time to raise our voice to protect him. At least capture the criminal for trial. May be we could save a life...may be the several! ' thanks to all whose r reading.
 
দীনা মরিয়মের ফেসবুক থেকে
 
বিবার্তা/মহসিন/কাফী
সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

৪৬, কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ

কারওয়ান বাজার (২য় তলা), ঢাকা-১২১৫

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১১৯২১৫১১১৫

Email: [email protected], [email protected]

© 2022 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com